হযরত রকীব শাহ (র:) ছিলেন যুগের একজন শ্রেষ্ট সু-সাহিত্যিক

শীর্ষ খবর সার্ভিস ক্লাব সিলেট

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন ইসলাম হচ্ছে শান্তির ধর্ম, হযরত রকীব শাহ (র:) ইসলাম প্রচারে সমগ্র দেশ ব্যাপি নিরবে কাজ করে যেতেন। শুধু তিনি মারেফাত ও তরিকতের পীর ছিলেন না, তিনি ছিলেন যুগের একজন শ্রেষ্ট সু-সাহিত্যিক। তিনি আমাদের জন্য রেখে গেছেন বাস্তবধর্মী এক সাহিত্য ভান্ডার। যার মাহাত্ম ও অন্তর্নিহীত তথ্যাদি পরবর্তী প্রজন্মের জন্য গবেষনার বিষয়। তাই অনেক শিক্ষিত ও বুদ্ধিজীবিগন তার সাহিত্য নিয়ে গবেষনা করে থাকেন। আহরণ করে থাকেন জ্ঞান, সমৃদ্ধ করে থাকেন নিজেদের জ্ঞানের পরিধি। গঠণ করতে থাকেন সুশীল ও পুত-পবিত্র জীবন। মানবতা ও মানব জীবনের উৎকর্য সাধনে হযরত রকীব শাহ (র:) সাহিত্য ভান্ডারের অবদান ও ভূমিকা অপরিসীম। তিনি আরো বলেন তার পরিবার সহ নতুন প্রজন্ম তার জীবন ইতিহাসকে ধরে রাখতে কাজ করে যেতে হবে এবং জানতে হবে তার জীবনী সর্ম্পকে। শফিক চৌধুরী (২মার্চ) মঙ্গলবার রাতে রকীব শাহ পরিষদের উদ্যোগে পরিষদের সভাপতি ড. কাজী কামাল আহমদের সভাপতিত্বে সিলেট নগরের কাজীটুলাস্থ হযরত রকীব শাহ (র:) মাজারের ৫৫তম ওরস শরীফের দ্বিতীয় দিনে তার জীবন ও সাহিত্য শীর্ষক বিষয়ক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অতিরিক্ত পরিচালক মোছাব্বির মোহাম্মদ মুসা, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি প্রাক্তন পিপি ও বিশিষ্ট সিনিয়র আইনজীবী ইমাদুল্লাহ শহীদুল ইসলাম, স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট ব্যাংকার শহীদুল ইসলাম, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সারা মোবাশ্বেরা, ঢাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও গুড ভাইভস্ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা কাজী আফিয়া বানু, আর্কিটেক্ট কাজী আরিফ আহমদ, কানাডা প্রবাসী কমিউনিটি নেতা আতিকুর রহমান, শাহ মো. আবুল মিয়া, শাহ মো. মোমিন আহমদ, হাজী মো. সাদিকুর রহমান, এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন শাহ মো. আব্দুল মুকিত, মো. সামসুল ইসলাম (মুন্না), মহানগর যুবলীগ নেতা জিয়াউর রহমান লিমন, আব্দুল বাসিত খাঁন, নয়াসড়ক ক্রিড়া সংস্থার সভাপতি মতিউর রহমান শিমুল, শাহ কামাল পাশা, সুহেল আহমদ, আরাদ আহমদ প্রমুখ।