মেয়র আরিফের প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদার দাবীতে কাতারে বৃহত্তর সিলেট প্রবাসীর সভা

প্রবাস

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা দেয়ার দাবিতে কাতারে দলমত নির্বিশেষে এক মঞ্চে দাড়িঁয়েছেন আওয়ামীলীগ-বিএনপির নেতাকর্মীর। গতকাল কাতারের রাজধানী দোহার একটি রেস্তোরায় কাতারস্থ বৃহত্তর সিলেটের প্রবাসীর ব্যানারে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় দলীয় সংকীর্ণতা পরিহার করে এক মঞ্চে বসে কাতার আওয়ামীলীগ ও বিএনপি।
কাতারস্থ সিলেটের প্রবীণ কমিউনিটি নেতা মো: বোরহান উদ্দিন শরিফের সভাপতিত্বে, কমিউনিটি নেতা সিরাজুল ইসলাম সেবুল ও সিরাজুল ইসলাম শাহিনের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় দল মতের উর্ধ্বে উঠে বিপুল সংখ্যক সিলেট প্রবাসী অংশ নেন। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন কাতার প্রবাসী কমিউনিটি নেতা শরীফুল হক সাজু।
কাতারস্থ বৃহত্তর সিলেটের প্রবাসী আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কাতারে অবস্থানরত বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও কমিউনিটি নেতা মো: কফিল উদ্দিন। বিশেষে অতিথির বক্তব্য রাখেন, কমিউনিটি নেতা মো: আব্দুস সাত্তার, মো: নজরুল ইসলাম, সৈয়দ আনা মিয়া, মাহবুবুর রহমান বাবু, আব্দুল খালেক, মোখলেছুর রহমান মেম্বার, শরিফুল হক শাজু, রইছ উদ্দিন, আহমদ মালেক, আবু তাহের, বদরুল ইসলাম, পংকি মিয়া, এস.কে লোকমান সিদ্দিকী, আবুল হাসান, সাদ উদ্দিন, রেজাউল করিম রেজু, খালেদ আহমদ, সাইন উদ্দিন রুয়েল, রাজু আহমদ প্রমূখ।
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, দেশের সিটি কর্পোরেশনের মেয়রদেরকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা দেওয়া হলেও আমাদের সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হককে সেই মর্যাদা দেওয়া হয়নি। অথচ দেশের আধ্যাত্মিক রাজধানী সিলেট হচ্ছে ইতিহাস ঐতিহ্য, সাহিত্য-সংস্কৃতির সমৃদ্ধ জনপদ। মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের সকল ক্রান্তিলগ্নে সিলেটবাসীর রয়েছে গৌরবোজ্জল ইতিহাস। এরপরও সিলেটের মেয়রকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা না দেয়া সিলেটবাসীর প্রতি অবহেলা ও অবমাননার শামিল। সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধ জানান তারা।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো: কফিল উদ্দিন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের সকল সিটি মেয়রকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা দেয়া হলেও সিলেটের মেয়রকে তা দেয়া হয়নি। আমাদের বিশ্বাস মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সিলেটের মেয়রকেও প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা দেবেন। মেয়র ব্যক্তিগতভাবে দলীয় হলে পদটি কিন্তু রাষ্ট্রীয়। সুতরাং রাজনৈতিক কারণে সিলেটের মেয়রকে তার ন্যায্য প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত করা ঠিক হবেনা। আজ আরিফুল হক চৌধুরী বিএনপির মেয়র আছেন। আগামীতে মেয়র পদে আওয়ামীলীগের কেউ আসতে পারেন। সেই দিক বিবেচনায় সিলেটের মেয়রকে প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা দেয়ার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবী জানান তারা।
সভায় উপস্থিত কাতারস্থ সিলেট প্রবাসীরা প্রধানমন্ত্রী বরাবরে প্রেরণের জন্য স্মারকলিপিতে সাক্ষর করেন। শীঘ্রই কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সেটি প্রেরণ করবেন বলেও সভায় জানানো হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *