মানুষের অর্ধেক কাজ কেড়ে নেবে যন্ত্র

বিশ্ব শীর্ষ খবর

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম-ডাব্লিউইএফ এর পূর্বাভাষে এই শঙ্কার কথা বলা হয়েছে। অবশ্য রোবটিক্সে এই সময়ের মধ্যে আরও ৯ কোটি ৭০ লাখ কাজও সৃষ্টি হবে। তবে এতো বেশি চাকরি যাবে, বেশ কিছু পেশা রীতিমতো বিলুপ্ত হয়ে যাবে। ডাব্লিউইএফ

[৩] অটোমেশনের কারণে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে প্রশাসন এবং ডাটা প্রসেসিং এর মতো চাকরিগুলো। তবে সবুজ অর্থনীতিসহ বেশ কিছু খাতে তৈরি হবে নতুন চাকরি। বিশ্বের বৃহত্তম ৩০০ কোম্পানির উপর গবেষণা চালিয়ে এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। সারা বিশ্বে তারা ৮০ লাখ মানুষের চাকরির ব্যবস্থা করেছে। রয়টার্স

[৪] এই জরিপে অংশ নেয়া ৫০ শতাংষের বেশি কর্মী বলছেন, তারা তাদের প্রতিষ্ঠানে কিছু ক্ষেত্রে যান্ত্রীকিকরণ সমর্থন করেন। ৪৩ শতাংশ মনে করেন, প্রযুক্তির কারণে তারা নিজেদের চাকরি হারাতে যাচ্ছেন। বিবিসি

[৬] ডাব্লিউইএফ বলছে, বৈশ্বিক অতিমহামারীর কারণে সারা বিশ্বে যান্ত্রিকিকরণের গতি বেড়ে গেচে। তারা কোভিড পরবর্তী সময়ে মন্দা এড়াতে খরচ কমাতে চায়। আর যন্ত্রকে কোনও বেতন দিতে হয় না। এছাড়াও লকডাউনে মানুষ ঘরের বাইরে যেতে পারে না। যন্ত্রের এই সমস্যা নেই।