পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যা ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দায়ীদের দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্তির দাবি করেছেন সিসিক মেয়র

পুলিশি নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ঘটনা সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দায়ীদের দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
মেয়র বলেন, সিলেট মহানগর পুলিশ আশ্বস্থ করেছেন তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। দ্রুত তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন জমা দিবেন। এমন ঘটনার পূনরাবৃত্তি না হয় সে জন্য তদন্তে দায়িদের বিরোদ্ধে দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবিও জানান সিসিক মেয়র।
এঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তও দাবি করেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
সোমবার (১২ অক্টোবর ২০২০) সন্ধ্যায় নগরীর আখালিয়া নেহারীপাড়ার বাসিন্দা নিহত রায়হান আহমদের পরিবারকে দেখতে যান সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
সিসিক মেয়র নিহত রায়হান আহমদের মা, সন্তান ও স্ত্রীর সাথে দেখা করে তাদের সান্ত্বনা দেন। নিহত রায়হানের বিদেহি আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান তিনি।
এসময় রায়হানের পরিবার অভিযোগ করেন, রবিবার রাতে রায়হানকে সিলেট মহানগর পুলিশের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে আটকে রেখে নির্যাতন এবং চাদা দাবি করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সিসিক কাউন্সিলর মো. মখলিছুর রহমান কামরান সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
প্রসঙ্গত, রোববার (১১ অক্টোবর ২০২০) রায়হান আহমদ (৩৩) নিহত হন। পুলিশের দাবি, ছিনতাইয়ের দায়ে নগরীর কাষ্টঘর এলাকায় গণপিটুনিতে নিহত হন তিনি। তবে, রায়হানের পরিবারের অভিযোগ পুলিশের নির্যাতনে নিহত হয় রায়হান। এ ঘটনায় নিহত রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নী বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।