পাসপোর্ট দালাল চক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার

রাজধানী আগারগাঁওয়ের পাসপোর্ট অফিসের সামনে থেকে দালাল চক্রের সক্রিয় ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২। পরে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া ভুক্তভোগী এক ভিকটিম দালালদেরকে যে অর্থ প্রদান করেছেন তা ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে র‌্যাব-২ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মো. সুজন (২২), মো. নাছির (২৫), মো. সোহেল (২৪), মো. সোহাগ (২৮), শেখ আকরামুজ্জামান (৬০), সেন্টু মিয়া (৪৫), জসিম উদ্দিন (৪৫), মো. কাশেম (৫৫) ও নজরুল শেখ (৩৫)।

র‌্যাব-২ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আক্তার হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত র‌্যাব-২ এর আগারগাঁও কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

তিনি জানান, দীর্ঘদিন থেকে একটি সংঘবদ্ধ দালালচক্র অল্প সময়ে পাসপোর্ট করে দেয়ার প্রলোভন দেখানোসহ বিভিন্ন কৌশলে জনসাধারণের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিয়ে পাসপোর্ট প্রদান না করে প্রতারণা করে আসছিল।

এমনকি পাসপোর্ট ফি জমা দেয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া, ভুয়া সিল, সত্যায়ন, জাল ব্যাংক ভাউচার প্রদান, ভুয়া চিঠিপত্র তৈরি করা, ভুয়া পাসপোর্ট প্রদান করে জনসাধারণকে হয়রানি করে আসছিল।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে দোষী সাব্যস্ত করে দালাল চক্রের ৯ সদস্যকে জরিমানা ও বিভিন্ন মেয়াদের কারাদণ্ড প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, ফাতেমা আক্তার (২৭) নামের এক ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত পাসপোর্ট দালাল শেখ আকরামুজ্জামানের (৬০) কাছ থেকে পাসপোর্ট তৈরি বাবদ নেয়া ১৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। ওই অর্থ ভুক্তভোগীকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। জাগো নিউজ