কবিরা বিশ্বমানবতার কল্যাণে কথা বলেন —অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদ

সাহিত্য সিলেট

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদ বলেছেন, কবিরা বিশ্বমানবতার কথা বলেন। শব্দশৈলীর দ্বারা নির্মিত কবিতা ভালোবাসা, শান্তি, সাম্য এবং বিশ্বাসের ধারণে মানবজাতিকে অনুপ্রাণিত করে। কবি কমর উদ্দিন লস্কর’র কবিতায় সেই ভালোবাসা, শান্তি, সাম্য এবং বিশ্বাসের বাস্তবিক প্রতিফলন ঘটেছে। ভাব ও ভাষার উপমায় তার কবিতা আন্তঃদেশীয় সম্পর্কের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।
মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে বুধবার (২৪ মার্চ ২০২১) নগরীর দরগাহ গেইটস্থ কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাহিত্যসভা হলে পা-ুলিপি প্রকাশন, সিলেট ও আন্তর্জাতিক নাগরী একাডেমির যৌথ উদ্যোগে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদে দুইদিন ব্যাপী একক বইমেলা, আলোচনা সভা ও গুণীজন সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিবসে ভারতের মনিপুর রাজ্যের বিশিষ্ট কবি ও লেখক কমর উদ্দিন লস্কর’র কাব্যগ্রন্থ ‘হৃদয়পুরে সুখের লহর’-এর প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
পা-ুলিপি প্রকাশন, সিলেট-এর স্বত্বাধিকারী লেখক, প্রকাশক ও সংগঠক বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল’র সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ-এর সাবেক অধ্যক্ষ লে. কর্নেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক নাগরী একাডেমির উপদেষ্টা কবি রওশন আরা বাঁশি, বিশিষ্ট কলামিস্ট, প্রাবন্ধিক, কবি মোহাম্মদ আব্দুল হক, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, বিশ্বনাথ-এর প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম খান। অনুষ্ঠানে কবি ও লেখক কমর উদ্দিন লস্কর’র ‘হৃদয়পুরে সুখের লহর’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন অতিথিবৃন্দ।

কবি ও সাংবাদিক মুহাম্মদ আব্দুল বাছিত’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও কবি মোঃ আনোয়ার হোসেইন, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক নাগরি একাডেমির ডেপুটি ডিরেক্টর কবি এসপি সেবু, জালালাবাদ কবি ফোরামের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল কাদের, লেখক ও সাংবাদিক আল আমিন মোহাম্মদ সালমান, দর্পন টিভি ইউকে’র সিলেট প্রতিনিধি শোয়েব আহমদ, কবি কমর উদ্দিন লস্কর’র ‘হৃদয়পুরে সুখের লহর’ কাব্যগ্রন্থ থেকে আবৃত্তি করেন কলেজ শিক্ষার্থী হালিমা তান্নি। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন কবি কামাল আহমদ।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে লে. কর্নেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদ বলেন, কবি কমর উদ্দিন লস্কর’র কবিতায় সামাজিক অবিচার-অনাচার এবং দেশীয় অবহেলা-লাঞ্ছনার বিরুদ্ধে তীব্র দ্রোহের আগুন লক্ষণীয়। তিনি বিভিন্ন সময়ে দেশের মধ্যে ঘটিত প্রেক্ষাপটকে কবিতার প্রবাহমানতায় উপস্থাপন করেছেন। বিশ্বনাগরিক হিসেবে তার কাব্যপ্রতিভায় সেই চিত্রপট প্রতিভাত হয়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আন্তর্জাতিক নাগরী একাডেমির উপদেষ্টা কবি রওশন আরা বাঁশি বলেন, কবি কমর উদ্দিন লস্কর’র কবিতায় মাতৃভাষার প্রতি গভীর মমত্ববোধ প্রকাশ পেয়েছে। বিশেষ করে সিলেটি নাগরি এবং মনিপুরী ভাষার চর্চায় তিনি অগ্রগণী ভূমিকা পালন করেন। এছাড়াও তার কবিতায় আত্মপরিচয় গভীর অস্থিরতা তাকে অনন্য পরিচয়ে ভূষিত করেছে।

সভাপতির বক্তব্যে পা-ুলিপি প্রকাশন, সিলেট-এর স্বত্বাধিকারী লেখক, প্রকাশক ও সংগঠক বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল বলেন, কবি কমর উদ্দিন লস্কর’র কবিতায় মানবিক মূল্যবোধ, ধর্মান্ধতা, কুসংস্কার এবং নিবিড় জীবনবোধ ফুটে উঠেছে। আত্মপরিচয়ে গভীর উপলব্ধি তাঁকে কবিতাকে সুষমায় ব্যঞ্জিত করেছে। অদূর সাহিত্যে তিনি একটি প্রোজ্জ্বল অবস্থান সৃষ্টি করতে পারবেন বলে আমার বিশ্বাস।