ইংল্যান্ডের নতুন প্রধানমন্ত্রী ‘মুসলিম বংশোদ্ভূত’

আলোকিত মুখ বিশ্ব শীর্ষ খবর

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ব্রেক্সিটপন্থি কট্টর নেতা বরিস জনসন। বুধবার থেকে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন তিনি। তার প্রপিতামহ ছিলেন বিখ্যাত অটোমান সম্রাজ‌্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব।

পিতৃকূলের দিক থেকে জনসনের আছে একইসঙ্গে ব্রিটিশ ও তুর্কি উত্তরাধিকার। তার দাদার বাবা আলি কামাল ছিলেন অটোমান সাম্রাজ্যের অন্যতম প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব। জাতিতে তুর্কি মুসলিম। নিজেকে ধর্মনিরপেক্ষ দাবি করা আলি কামাল সুলতানের গ্র্যান্ড ভিজার (প্রধানমন্ত্রী) দামাত ফরিদ পাশার মন্ত্রিসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে আলী কেমাল প্রথমে একজন সাংবাদিক ছিলেন। পরে রাজনীতিতে যোগ দেন। তুরস্কের অটোম্যান মন্ত্রিসভায় খুব কম সময়ের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। তবে ১৯২০ এর দশকে গণপিটুনিতে নিহত হন আলী কামাল।

বাবার সূত্রে তার বংশের ইতিহাস জানতে, স্বজনদের সাথে দেখা করতে বরিস জনসন একবার তুরস্কে গিয়ে বেশ কিছুদিন ছিলেন। তার মুসলিম হেরিটেজের কথা মাঝেমধ্যেই প্রকাশ্যে বলেন বরিস জনসন। । তবে সম্প্রতি বোরকা পরা নারীদের নিয়ে তার এক কটু মন্তব্যের পর তাকে মুসলিম বিদ্বেষী হিসাবে অনেক গালমন্দ শুনতে হয়েছে।

জনসনের মাতা শার্লট ফচেট একজন চিত্রশিল্পী ছিলেন। তিনি ১৯৬৩ সালে স্ট্যানলিকে বিয়ে করেন এবং তার সাথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। পরের বছর যুক্তরাষ্ট্রের ম্যানহাটনে জন্ম হয় বরিস জনসনের। সেই সূত্রে বরিস জনসনের ব্রিটেন ও আমেরিকা উভয় নাগরিকত্ব লাভ করেন। তার পিতা স্ট্যানলি জনসন সে সময়ে কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি শাস্ত্রে অধ্যয়নরত ছিলেন।

সূত্র-somoyerkonthosor.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *