আইসিসির সেরা একাদশে সাকিব, নেই কোহলি-ওয়ার্নার

ক্রিকেট খেলাধুলা

বিশ্বকাপে অলরাউন্ডার হিসেবে সাকিব যা করেছেন ৪৪ বছরে কেউ করতে পারেননি। ব্যাটে-বলে রেকর্ড গড়েছেন তিনি। যেখানে পাঁচশ রানের সঙ্গে দশ উইকেট কেউ নিতে পারেননি। সাকিব সেখানে নিয়েছেন ১১ উইকেট। সঙ্গে ৬০৬ রান। তিনি বিশ্বকাপের টুর্নামেন্ট সেরা ক্রিকেটার হবেন বলেও জোর গুঞ্জন ছিল। শেষ পর্যন্ত কেন উইলিয়ামসন টুর্নামেন্ট সেরা হয়েছেন। তবে আইসিসি বিশ্বকাপের সেরা একদশ থেকে সাকিবকে বাদ দিতে পারেনি।

আইসিসির ঘোষিত একাদশে একমাত্র স্পিনার হিসেবে আছেন সাকিব। অলরাউন্ডার দু’জন। সাকিবের সঙ্গে আছেন পেস অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে ইংল্যান্ডের চারজন জায়গা পেয়েছেন বিশ্বকাপ দলে। ওপেনিংয়ে জেসন রয়কে রাখা হয়েছে। ওয়ার্নার কিংবা অ্যারন ফিঞ্চকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তবে বিশ্বকাপে রেকর্ড পাঁচ সেঞ্চুরিতে আসরের সর্বোচ্চ ৬৪৮ রান করা রোহিত শর্মাকে বাদ দিতে পারেনি।

কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসকে রাখা হয়েছে তিনে ব্যাটিংয়ের জন্য। বিশ্বকাপে তিনে দারুণ ব্যাটিং করা সাকিবকে রাখা হয়েছে চারে। জো রুট আছেন পাঁচে। তবে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি জায়গা পাননি একাদশে। পেস আক্রমণের নেতৃত্বে রাখা হয়েছে জোফরা আর্চার, মিশেল স্টার্ক এবং জাসপ্রিত বুমরাহকে। আর্চার এবারের বিশ্বকাপে যৌভভাবে তৃতীয় সর্বোচ্চ ২০ উইকেট নিয়েছেন। বিশ্বকাপ ইতিহাসের রেকর্ড ২৭ উইকেট নিয়েছেন মিশেল স্টার্ক। তাদের সঙ্গে পুরনো বলের পেসার হিসেবে আছেন লকি ফার্গুসন। তিনি ২১ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। উইকেট রক্ষকের গ্লাভস দেওয়া হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার অ্যালেক্স কেরির হাতে।

আইসিসির সেরা একাদশের অধিনায়ক করা হয়েছে কেন উইলিয়ামসনকে। তার জাতীয় দলের সতীর্থ ট্রেন্ট বোল্টকে রাখা হয়েছে দ্বাদশ সদস্য হিসেবে। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির মনোনীত পাঁচ সদস্যের কমিটি বিশ্বকাপের এই সেরা দল নির্বাচিত করে। সেখানে সদস্য হিসেবে ছিলেন ইয়ান বিশপ, ইয়ান স্মিথ ও ঈশা গুহ ও লরেন্স বুথ। পঞ্চম সদস্য ও আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আইসিসির ক্রিকেট বিষয়ক মহাব্যবস্থাপক জিওফ অ্যালারডাইস।

আইসিসির সেরা একাদশ: রোহিত শর্মা (ভারত), জেসন রয় (ইংল্যান্ড), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ), জো রুট (ইংল্যান্ড), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), অ্যালেক্স কেরি (অস্ট্রেলিয়া), মিশেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া), জফরা আর্চার (ইংল্যান্ড), লকি ফার্গুসন (নিউজিল্যান্ড) ও যশপ্রীত বুমরা (ভারত)। দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে রাখা হয়েছে নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্টকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *